অনুসন্ধান - অন্বেষন - আবিষ্কার

চমেক হাসপাতালের সরকারী ওষধ পাচারকালে ৩ কর্মচারী আটক

0
.

দীর্ঘ দিন ধরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (চমেক) থেকে সরকারি ওষুধ চুরি করে বাইরে বিক্রি করে দিচ্ছিল নার্স-কর্মচারীদের একটি চক্র। এবার মূলবান ওষধ পাচারে সময় মো. আজিজুর রহমান (৫০) নামে হাসপাতালের এক কর্মচারীকে হাতেনাতে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এসময় তার কাছ থেকে ১৪ হাজার টাকার ওষুধ জব্দ করা হয়। পরবর্তীতে বাসা তল্লাশি করে আরও ৮ হাজার টাকার ওষুধসহ মোট ২২ হাজার টাকার সরকারি ওষুধ জব্দ করা হয়েছে।

গতকাল চমেক হাসপাতালের নিচ তলায় ফার্মেসির আউটডোরের সামনে থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরবর্তীতে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে চোরাই কাজে সহযোগী হিসেবে আরও দুই কর্মচারীকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার তিনজনই হাসপাতালের তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারী।

গ্রেপ্তার বাকি দুইজন হলেন চমেকের ফার্মাসিস্ট মো. দাউদ ইসহাক (৫২) ও ইলেক্ট্রিক্যাল মেকানিক মো. সাইমন হোসাইন (৪৬)। এরমধ্যে গ্রেপ্তার আজিজুর রহমান চমেক হাসপাতালের টিকিট কাউন্টারের অফিস সহায়ক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

বুধবার দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করে চমেক হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই নুরুল আলম আশেক বলেন, হাসপাতালের নিচ তলায় সরকারি ফার্মেসির পরে করিডোর থেকে চোরাই ওষুধ সহ নিয়ে যাওয়ার সময় অফিস সহায়ক একজনকে আটক করা হয়। তার কাছ থেকে চোরাই যাওয়া ১৪ হাজার টাকার সরকারি ওষুধ জব্দ করা হয়। পরবর্তীতে তার বাসা তল্লাশি করে আরও ৮ হাজার টাকার সরকারি চোরাইকৃত ওষুধ জব্দ করা হয়। এরপর তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে চোরাই কাজে সহযোগী হাসপাতালের আরও দুই কর্মচারীকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে মামলা প্রক্রিয়াধীন।’